চাঁদপুরে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

70
মোঃ মাহমুদুল হাসান
আইডি নং #৩৮৯
চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
আজ ১৭ ই ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। অধিকার আদায়ের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সারা দেশের মতোই চাঁদপুর জেলা নানা কর্মসূচির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে।
চাঁদপুর জেলা শাখা সহ, চাঁদপুর জেলার ৮টি উপজেলার নেতৃবৃন্দকে নিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।
চাঁদপুর জেলা বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ এর আয়োজনে এবং টাঙ্গাইল জেলা যুব অধিকার পরিষদের সহযোগিতায় রসুইঘর রেস্টুরেন্টে আলোচনা সভা ও কেককাটা অনুষ্ঠান পালন করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের জেলা শাখার সভাপতি মোঃ মাহমুদুল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক সামিউল প্রধান,সহ-সভাপতি মোঃ রাসেল,আক্তারুজ্জামান দিপু,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মানিক মিয়া কচুয়া উপজেলার সভাপতি আব্দুল্লাহ আল রাহাদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তানবির আহমেন,সাহাদাত,আহমেদ হোসাইন,মতলত উত্তরের সভাপতি গোলাম রাব্বি, সহ-সভাপতি ইউসুফ ইসলাম সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বাপ্পি,মতলব দক্ষিণের সমন্বয়ক শফিকুল ইসলাম, মেহেদী হাসান, হাজীগঞ্জের সমন্বয়ক জাহিদুল ইসলাম,নিরব আহমেদ,শাহরাস্তির সমন্বয়ক ওমর ফারক,ফরিদগঞ্জেন সমন্বয়ক ইয়াসিন আরাফাত, হাবিব আদনান, নাজিম হোসেন,রাফি,হাইমচরের সমন্বয়ক রেদোয়ান হোসেন,আতিকুল, চাঁদপুর সদরের আহমেদ নিশো,সিয়াম,জীবন,শাওন সহ সংগঠনটির প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলার বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের সালমান ফারসি,কাজি রাসেল,রাজন,আকাশ,মোল্লা রাসেল, ও রাসেল সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনকালে সভাপতি মোঃ মাহমুদুল হাসান বলেন, সভাপতির বক্তব্যে মাহমুদুল হাসান বলেন আমরা মানবিক, ন্যায়বিচার, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সম্পন্ন রাষ্ট্র গঠনে স্বাধীনতাকামী মানুষের সহযোগী হয়ে কাজ করবো।
‘আরো বলেন,কোটা নামক বৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তোলার মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয় বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের। পরবর্তীতে ছাত্রসমাজ তথা গণমানুষের অধিকার আদায়ে এখনো পর্যন্ত হামলা-মামলা নির্যাতন সহ্য করে কাজ করে যাচ্ছে এই সংগঠন। এভাবেই নানা ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ।’
এছাড়াও তিনি এই গনতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের সংগ্রামে ছাত্রসমাজ সহ সকলকে পাশে থাকার আহবান করেন।
সাধারণ সম্পাদক মো: সামিউল প্রধান বলেন, ‘শিক্ষা অধিকার প্রগতি এর পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ এর রয়েছে অধিকার আদায়ের সংগ্রাম এর এক উজ্জ্বল ইতিহাস। বাংলার মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে শুরু থেকে কাজ করে যাচ্ছে ছাত্র অধিকার পরিষদ। ক্যাম্পাসে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনা, দখলমুক্ত নিরাপদ ক্যাম্পাসের জন্য আজীবন সংগ্রাম করে যাবে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ।’