দ্রুত দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করবে ভারত

8

করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণে টালমাটাল দক্ষিণ এশিয়ার জনবহুল দেশ ভারত। সংক্রমণের দিক থেকে তালিকায় দেশটি এখন দ্বিতীয় অবস্থানে। টানা তিনদিন দেশটিতে দৈনিক শনাক্ত ২ লাখের বেশি। সবগুলো রাজ্যেও প্রতিদিন নতুন শনাক্তের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি ও টিকাদান পর্যালোচনা’ বৈঠক করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর এনডিটিভির।

শনিবার ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যের মুখমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় সরকারের কয়েকটি দফতরের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে এ বৈঠক করেন তিনি। এসময় নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘গত বছর করোনার প্রথম ঢেউ আমরা যেভাবে দক্ষতার সঙ্গে মোকাবিলা করেছিলাম, এবার সমন্বিত প্রচেষ্টায় দ্বিতীয় ঢেউ তার চেয়েও দ্রুততার সঙ্গে মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে ভারত।’

যদিও বৈঠকে শীর্ষ কর্মকর্তারা বিভিন্ন রাজ্যের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ এবং টিকা ঘাটতির কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন। তবে নরেন্দ্র মোদি দেশবাসীকে করোনা মোকাবিলায় সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে দ্রুত মহামারি কাটিয়ে ওঠার ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছেন।
মোদি বলেন, ‘করোনা পরীক্ষা, সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসাদের চিহ্নিত কর এবং তাদের দ্রুত চিকিৎসার আওতায় আনার কোনো বিকল্প নেই। এছাড়া কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানার মাধ্যমে সংক্রমণ ঝুঁকি কমানো সম্ভব।’

বৈঠকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী করোনা আক্রান্তদের জন্য সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে পর্যাপ্ত আইসিইউ বেডের ব্যবস্থা করা এবং রেমডেসিভিরসহ করোনা চিকিৎসায় কার্যকর ওষুধ সরবরাহ ব্যবস্থার খোঁজ-খবর নেন।