আম্ফান এ ক্ষতিগ্রস্থ চাষিদের মাঝে জরুরী মৎস্য খাদ্য ও কাঁকড়া খাঁচা বিতরন

22
আলসাদুর আরাফাত সাতক্ষীরা প্রতিনিধি আইডি নং-955
সুপার সাইক্লোন আম্ফান এ ক্ষতিগ্রস্থ 85 জন গলদা ও বাগদা চাষিদের মাঝে জরুরী মৎস্য খাদ্য ও ১৫ জন কাঁকড়া চাষিদের মাঝে খাঁচা বিতরন করা হয়েছে। সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়, দাকোপ, খুলনা এর আয়োজনে কমিউনিটি-বেসড ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট ফিশারিজ এন্ড একুয়াকালচার ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ প্রকল্পের আওতায় আম্ফান এ ক্ষতিগ্রস্থ চাষিদের মাঝে জরুরী মৎস্য খাদ্য ও কাঁকড়া খাঁচা সহায়তা প্রদান করা হয়। এ প্রকল্পের আওতায় দাকোপ উপজেলার 85 জন গলদা ও বাগদা চাষিদের একশত কেজি মৎস্য খাদ্য ও পরিবহন ব্যয় বাঁবদ এক হাজার নগদ টাকা এবং আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ 15 জন কাঁকড়া চাষীকে 100 পিস করে কাঁকড়ার খাঁচা ও পরিবহন ব্যয় বাঁবদ এক হাজার নগদ টাকা প্রদান করা হয়। উক্ত জরুরী মৎস্য খাদ্য ও কাঁকড়া খাঁচা সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন
উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব মুনসুর আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মিন্টু বিশ্বাস, মৎস্য অধিদপ্তর, খুলনা অঞ্চলের উপপরিচালক জনাব আবু ছাইদ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা আকতার, প্রকল্প পরিচালক, সমীর কুমার সরকার, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সেলিম সুলতান, এফএও এর ন্যাশনাল কমিউনিটি ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিষ্ট মাছুদুর রহমান প্রমুখ। দাকোপ উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন- এই খাদ্যে ও খাঁচা সহায়তা আম্ফান ক্ষতিগ্রস্থ চাষিদের বেশ কাজে লাগবে এবং তারা এ থেকে অনেক উপকৃত হবে। প্রকল্প পরিচালক জনাব সমীর কুমার সরকার বলেন- এই প্রকল্পটি জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা এর তত্বাবধানে বাংলাদেশ মৎস্য অধিদপ্তর, খুলনা অঞ্চলের ৫ টি উপজেলায় বাস্তবায়ন করছে। এই বিতরন কর্মসূচীর পূর্বে জেলে পরিবারের 500 জন নারীর মধ্যে 5 লক্ষ টাকা এবং 5 লক্ষ টাকার পুষ্টি উপকরণ বিতরন করা হয় এবং এদেরকে পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।