প্রিমিয়ার লিগে গোল্ডেন বুটের মালিক ভার্দি

6

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগের শেষ ম্যাচে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েছে লিস্টার সিটি। এই ম্যাচে কোন গোল পাননি লিস্টার স্ট্রাইকার জেমি ভার্দি। তবে প্রিমিয়ার লিগের এবারের মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতা হিসেবে গোল্ডেন বুট অর্জন করে নিয়েছেন এ স্ট্রাইকার। প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশী ৩৩ বছর বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে গোল্ডেন বুট পেলেন এ ইংলিশ স্ট্রাইকার।
সর্বোচ্চ ২৩ গোল করে ভার্দি এই পুরস্কার জয় করেন। তার থেকে এক গোল কম করেছেন আর্সেনালের হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং। ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে ৩-২ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে এই গ্যাবনিজ স্ট্রাইকার করেছেন দুই গোল। ২২ গোলসহ অবামেয়াংয়ের সঙ্গে সমান গোল করেছেন সাউদাম্পটনের ড্যানি ইনগিস।

লিস্টার ম্যানেজার ব্রেন্ডন রজার্স বলেছেন, ‘এটা সত্যিকার অর্থেই দারুণ একটি ব্যক্তিগত অর্জন। তার গোল ছাড়া আমাদের এই পর্যন্ত আসা সম্ভব হতোনা। তার সঙ্গে কাজ করাটা দারুণ আনন্দের। মানসিক ভাবেও সে অনেক শক্তিশালী একজন খেলোয়াড়। তাকে দলে পেয়ে আমরা আনন্দিত’।

গত মৌসুমে ২২ গোল করে যৌথভাবে এই পুরস্কার জয় করেছিলেন অবামেয়াং, মোহাম্মদ সালাহ ও সাদিও মানে। এবারের তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন ২০ গোল করা রাহিম স্টার্লিং, সালাহ করেছেন ১৯ গোল।

এদিকে নিক পোপেকে অল্পের জন্য পেছনে ফেলে প্রিমিয়ার লিগের গোল্ডেন গ্লোভস পুরস্কার জয় করেছেন এডারসন। ম্যানচেস্টার সিটির গোলরক্ষক এডারসন দলের ৫-০ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে কোন গোল হজম করতে দেননি। এই নিয়ে এবার ১৬টি ম্যাচে সিটিজেনরা কোন গোল হজম করেনি। পোপের নৈপুন্যে ১৫টি ম্যাচে কোন গোল হজম করেনি বার্নলি।

সিটির কেভিন ডি ব্রুইনা লিগে ২০টি এসিস্ট করে ২০০২-০৩ মৌসুমে থিয়েরি অঁরির রেকর্ড স্পর্শ করেছেন।