সড়কটি দ্রুত সংস্কার কারার জন্য উর্ধ্বতন ও সংশ্লিষ্ট কতৃর্পক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা

4
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ::  ফকিরনীর থেকে শুরু করে জুলদা পাইপের গুরা ও ডাঙ্গগারচর প্রযন্ত রাস্তাটির বেহাল অবস্থার, সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। রাস্তাটি সংস্কার না করায় এলাকার জনসাধারণ ও গাড়ি চলাচলে ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে বলে এলাকার সাধারণ মানুষ জানিয়েছে।সামান্য বৃষ্টি হলেই প্রচন্ড জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয় সড়কটি। এরই মধ্যে ইট ভেঙে ছোটখাট কুয়ায় পরিণত হয়েছে সড়কটির বেশ কয়েকটি অংশ। ফলে এর বেশ কিছু অংশই এখন চলাচলের উপযোগী নয়। সড়কটি এখন যেন মরণফাঁদ। রাস্তার অনেক জায়গায় ইট সলিং উঠে গিয়ে ছোট-খাটো গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহনগুলোকে চলতে হচ্ছে হেলেদুলে। রাস্তাটির বেহাল অবস্থার কারণেও চলাচল অযোগ্য হয়ে পড়ায় প্রায় প্রতিদিন কোনো না কোনো যানবাহন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। রাস্তাটিতে অসংখ্য খানা-খন্দে ভরে গেছে এবং উঠে গেছে ইটের সলিং। এছাড়া ছোট বড় মিলে রাস্তাটিতে প্রায় পাঁচশত শতাধিক গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে বিভিন্ন যানবাহন এসব গর্তে পড়ে দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। রাস্তা ভাঙ্গার কারণে দুর্ভোগে ভোগছেন হাজার হাজার মানুষ। বিকল্প সড়ক না থাকায় দুর্ভোগ সহ্য করে প্রতিদিন এ রাস্তায় চলাচল করছেন এ গ্রামের লোকজন। অতিদ্রুত রাস্তাটি পুনর্নিমাণ বা সংস্কার করার দাবি এলাকাবাসীর।
এলাকাবাসীরা জানান সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও জনপ্রতিনিধিদের জানানোর পরেও দীর্ঘ দিন অপেক্ষার পরেও কোন কাজ হচ্ছে না। সকলের দাবী অতি শ্রীঘ্রই যেন এই রাস্তাটির সংস্কার ও পূননির্মান করা হয়,এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষসহ দুরপাল্লার গাড়ি, বাস, ট্রাক, কভার ভ্যান ,টেম্পু, রিক্সা, এলাকায় যাতায়াত করে, যা চলাচলের জন্য উপযুক্ত রাস্তার নয়।নানা কারণে ও অর্থনৈতিক দিক দিয়ে এই উপজেলাটি অনেকটা স্বাবলম্বী হলেও যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটা ঠিকাদারের অবহেলা। রাস্তার বালি ও কংক্রিট দেয়া হয়েছে অনিয়মতান্ত্রিক, রাস্তা খোড়াখুড়ি করেছে, রাস্তায় বালি দিয়ে লেবেল করছে, মাঝে- মাঝে গর্ত আছে। রাস্তার গাছ কাটা হচ্ছে না, সেজে গুজে রাস্তায় চলাচলে গোসল করে ঘরে ফিরতে হয়, সাধারন মানুষ তথা শিশু, নারী, বৃদ্ধ পুরুষের হয় চরম অবস্থা, ফলে সাধারণ জনগণকে এই সড়ক দিয়ে যাতায়াতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।বর্তমানে রাস্তাটির এমন অবস্থা হয়েছে যে চলাচলে জনগনের রাস্তায় নামতে চাচ্ছে না। সড়কটির এমন অবস্থা মানুষের যেন কষ্টের শেষ নেই। এই সড়কটি দিয়ে যাতায়াতে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা আর দুর্ঘটনা। এদিকে এই সড়কটি দ্রুত সংস্কার কারার জন্য উর্ধ্বতন ও সংশ্লিষ্ট কতৃর্পক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন সাধারন জনগন।