শিপ্রাকে নিয়ে পুলিশের মন্তব্য: হাইকোর্টে রিটের আদেশ বৃহস্পতিবার

10

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের প্রামাণ্যচিত্র তৈরির সহযোগী স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথকে উদ্দেশ করে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দুই পুলিশ কর্মকর্তার মন্তব্য চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিটের শুনানি শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে আদেশ দেওয়া হবে।
বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ দিন ধার্য করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনোজ কুমার ভৌমিক এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার ঘটনায় দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা চেয়ে গত ১৬ আগস্ট হাইকোর্টের সংশ্নিষ্ট শাখায় রিট করন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনোজ কুমার ভৌমিক। রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের প্রধান, খুলনা রেঞ্জের ডিআইজিসহ সংশ্নিষ্টদের বিবাদী করা হয়। রিট আবেদনে বলা হয়, শিপ্রা দেবনাথের ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে যে মন্তব্য করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ অবৈধ। রিটে এ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি জাতীয় ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনও সংযুক্ত করা হয়।
ওই প্রতিবেদনে শিপ্রার ছোট ভাই শুভজিৎ কুমার দেবনাথ বলেন, কয়েকজন উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাসহ কতিপয় লোক শ্রিপার ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে উসকানিমূলক মন্তব্য করেছেন। দায়িত্বশীল পদে থেকে এ ধরনের মন্তব্য নোংরা মানসিকতা থেকে আসতে পারে বলেও মনে করেন তিনি। শুভজিৎ আরও বলেন, ‘ঘটনার সময় পুলিশ তাদের সব ডিভাইস জব্দ করেছে। সেসব ডিভাইস থেকে কোনো কিছু ফাঁস হয়েছে কি না, সেটা নিয়েও আমাদের সন্দেহ রয়েছে।’