গাইবান্ধায় একুশে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত “

8
গাইবান্ধা রিপোর্টার (৯৭৮),   ২১ শে আগস্ট রোজ শনিবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সদর উপজেলা শাখার উদ্যোগে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এ আওয়ামীলীগের দলীয় সভায় গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে, নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ সকাল ১১.০০ ঘটিকায় জেলা আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ও সদর আসনের সংসদ সদস্য জনাব মাহবুব আরা বেগম গিনি,এমপি।
বিশেষ অতিথি ছিলেন জনাব আবু বক্কর সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক, জেলা আওয়ামী লীগ, গাইবান্ধা।
সভায় প্রধান অতিথি বলেন তৎকালীন বিএনপি- জামায়াত জোট সরকার ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা কে হত্যার উদ্দেশ্য শক্তি শালী গ্রেনেড হামলা করে হত্যা করতে চেয়েছিলে কিন্তু আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের আত্মত্যাগ ও প্রতিরোধের কারণে জননেত্রী তারা ব্যর্থ হয়েছে।
কিন্ত ঐ মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমান সহ ২৪ জন নেতা ও কর্মী মৃত্যবরণ।
তিনি বলেন এই জঘন্যতম হামলায় অংশগ্রহণকারীদের বিচারের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। এই বাংলায় আরও কোন ২১ আগস্ট দেখতে চাই না।
খুনি তারেক রহমানকে দেশে বিচারের মুখোমুখি করতে সভায় থেকে বলা হয়।
এজন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থেকে দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে।
এই সরকারের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে।
বিশেষ অতিথি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে যারা একুশে আগস্ট হত্যা করতে চেয়েছিলেন তাদেরকে বাংলা মাটিতে বিচার করে দেশ থেকে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের মূলোৎপাটন করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে হবে, এই হোক আজকের সভার অংগীকার।
উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন জনাব মোঃ রেজাউল করিম রেজা,সভাপতি, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ।
জনাব মোঃ আমিনুর জামান রিংকু, সাধারণ সম্পাদক এর সঞ্চালনায় অন্যাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফরহাদ আব্দুল্লাহ হারুন, সহসভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগ, জনাব মৃদুল মোস্তাফিজ ঝন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা আওয়ামী লীগ, জনাব মোস্তাক আহমেদ রঞ্জু, সভাপতি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শাহ আহসান হাবীব রাজীব, সাধারণ সম্পাদক, জেলা যুবলীগ, আসিফ সরকার, সভাপতি, জেলা ছাত্রলীগ,গাইবান্ধা সহ অন্যান্য নেতৃত্ববৃন্দ প্রমুখ।
পরে নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া পরিচালনা করা হয়।