মাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় অভিযুক্ত হলেন ক্লোজআপ ওয়ান তারকা কুড়িগ্রামের সাজু

6
লোকমান হাকিম (লিটন)
জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
আইডি নং-১০০৮
ক্লোজআপ ওয়ান তারকা সাজু আহমেদের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা মামলা করেছেন হাসপাতালে চিকিৎসায় থাকা আহত মা রানীজান বেগম। নিজে বাদী হয়ে ছেলের বিরুদ্ধে ‘হত্যার উদ্দেশে হামলা ও গুরুতর জখম’ অভিযোগ উলিপুর থানায় মামলাটি করেন তিনি। রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) মামলা রেকর্ড হয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ কবির জানান ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত সাজু গা ঢাকা দিয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।২০০৮ সালে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের রিয়ালিটি শো ক্লোজআপ ওয়ান এর দ্বিতীয় রানার আপ নির্বাচিত হন কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নের তেলিপাড়ার মৃত আজগর আলী ও রানীজান বেগমের ছোট ছেলে সাজু আহমেদ। এরপর থেকে তারকা হিসেবে পরিচিতি বাড়ে সাজুর। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে জনসংযোগ চালাচ্ছিলেন তিনি।এদিকে ছেলের হামলায় মাথায় জখম নিয়ে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন সাজুর মা রানীজান বেগম। তার শারীরিক অবস্থা ভালো বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক পুলক কুমার সরকার।
এ বিষয়ে কথা হলে সাজুর মা রানীজান বেগম বলেন, ‘আমি সাজুর কঠিন শাস্তি চাই, ওর যেন জেল হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘সে বারবার আমাকে অপমান করে আসছে। আমার ছোট ছেলে এবং শিল্পী বলে এতদিন অভিযোগ করিনি। এখন ওর এমন শাস্তি চাই যা দেখে যেন অন্য ছেলেরাও সতর্ক হয়ে যায়।’
অন্যদিকে নিজের ফেসবুকের ওয়ালে অসুস্থ মায়ের জন্য দোয়া চেয়ে পোস্ট দিয়েছেন সাজু আহমেদ। সোমবার ভোরে দেওয়া পোস্টে সাজু লেখেন, ‘আমার মা এর জন্য সবাই দোয়া করবেন প্লিজ’।
তবে এ বিষয় কথা বলতে সাজু আহমেদের মুঠোফোনে দীর্ঘসময় ধরে কল করা হলেও বন্ধ পাওয়া যায়।
গত শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) জমির পৈত্রিক ভাগ না দেয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে সাজুর আঘাতে তার মা রানীজান বেগমের কপাল ফেটে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে। কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি। তার কপালে ৮টি সেলাই দেয়া হয়েছে বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।
এবিষয়ে উলিপুর থানার ইনচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ কবির জানান অভিযুক্ত সাজু গ্রেফতারের জন্যে কার্যক্রম অব্যাহত আছে তাকে যে কোন সময় গ্রেফতার করা হবে