ঝিনাইগাতী একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের জাল-জালিয়াতি ও দুর্নীতির তদন্ত শুরু

203
শেরপুর প্রতিনিধিঃ ID-৮৩১
শেরপুরের ঝিনাইগাতী একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবুর জাল-জালিয়াতি ও দুর্নীতির তদন্ত শুরু হয়েছে। ১৭ অক্টোবর শনিবার দুপুরে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোকসেদুর রহমানের নেতৃত্বে একতা উচ্চ বিদ্যালয়ে এ তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়। উল্লেখ্য প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবু জাল-জালিয়াতি করে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যসহ নানাভাবে দুর্নীতির মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে উপজেলা সদরের বাসিন্দা মনোয়ার উল্লাহ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদকে) একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদকের পরিচালক ঘটনাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য শেরপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। উক্ত নির্দেশ বলে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোকসেদুর রহমান এ তদন্তের অংশ নেন। তদন্ত চলাকালে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। তদন্ত কালীন সময়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করতে পারেননি। এ প্রসঙ্গে প্রধান শিক্ষক আমিরুজ্জামান লেবু তদন্ত কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর ১৩ অক্টোবর শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র খোয়া গেছে মর্মে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। সচেতন মহলের অভিযোগ ঘটনাটা ধামাচাপা দেওয়ার উদ্দেশ্যে আমিরুজ্জামান লেবু এ নাটকে অংশ নেন। তদন্ত শেষে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোকছেদুর রহমান বলেন
তদন্তের কাজ সম্পন্ন হয়েছে কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দুদকে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। দুদক কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে।