নালিতাবাড়িতে উচ্ছেদ আতঙ্কে ভূগছে এক ভূমিহীন পরিবার

50
শেরপুর প্রতিনিধিঃ-৮৩১
শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে উচ্ছেদ আতঙ্কে ভুগছেন আবেদ আলী নামে এক ভূমিহীন পরিবার। আবেদ আলী উপজেলার পোড়াগাঁও ইউনিয়নের আন্দারুপাড়া বাইগরপাড়া গ্রামের মুন্নাছ আলীর ছেলে। জানা গেছে, ৩ ছেলে ১ মেয়েসহ ৬ সদস্যের পরিবার আবেদ আলীর। সহায় সম্বল বলতে বাড়ী ও ছোট একটি পুকুর সহ ৪০ শতাংশ জমি ছাড়া আরও কিছুই নেই তার। দীর্ঘ প্রায় দুই যুগ পূর্বে সাফ কবলা দলিল মূলে ওই জমি ক্রয় করে ঘরবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন আবেদ আলী। বাড়ির সামনে কিছু জমিতে সবজি আবাদ করে যা আয় হয় তাই দিয়ে চলে তার সংসার। এক বেলা খেলে আরেক বেলা জুটেনা খাবার। পরিবারের সদস্যদের জীবন জীবিকা নির্বাহের একমাত্র অবলম্বন আবেদ আলীর ওই জমি টুকুই। কিন্তু ওই জমির প্রতিলোভ জাগে প্রতিবেশী সুলতান মিয়া, রহমত আলী, রফিকুল ইসলাম, দেলোয়ার, রতন গংদের। তারা গত কয়েক বছর যাবৎ আবেদ আলীকে ওই জমি থেকে উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে নানা ভাবে ষড়যন্ত্র শুরু করে আসছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি সুলতান গংরা আবেদ আলীর ওই জমি জাল দলিল তৈরি করে নামজারি ও খারিজ করে নিতে উপজেলা ভূমি অফিসে যান । এ সময় জাল দলিলে জমি খারিজ করতে আসার অপরাধে সহকারী কমিশনার ভূমি বাদী হয়ে সুলতান গংদের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে চলমান রয়েছে। এদিকে এ ঘটনার পরেও থেমে নেই সুলতান গংদের আবেদ আলীকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র। গত ৯ অক্টোবর সকালে সুলতান গংরা লাঠিসোঠা নিয়ে আবেদ আলী ও তার পরিবারকে উচ্ছেদ করতে তার বাড়িতে যান । পরে আবেদ আলী শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সুলতান গংদের বিরুদ্ধে ১৪৪ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলার বলে আদালত তর্কিত জমিতে শৃঙ্খলা রক্ষায় থানা পুলিশকে নির্দেশ ও ভূমি মালিকানা দখল বিষয়ক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সহকারী কমিশনার ( ভূমি) কে নির্দেশ দেন। কিন্তু এ মামলা দায়েরের পরেও বিবাদীদের ভয়-ভীতি ও হুমকির মুখে আতঙ্কে দিনাতিপাত করছেন আবেদ আলী ও তার পরিবারের লোকজন। এ ব্যাপারে আবেদ আলী জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।