নাগরপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৪ পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী

30
এম.এ.মান্নান,আইডি নং-৮১৩
নাগরপুর(টাংগাইল)প্রতিনিধি:
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বাস ও সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার একই পরিবারের ৫ জন ও নাগরপুর ফায়ার সার্ভিসের নিকটে সিএনজি চালক সেন্টু সহ ৭ জন নিহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে এবং বাদ্যকর ও রামপ্রসাদ বাদ্যকর,জামাল ও সেন্টু পরিবারের পাশে দাড়িয়ে তাদের প্রত্যেক পরিবার বর্গকে নগদ এক(১)লক্ষ করে মোট চার(৪)লক্ষ টাকার অনুদান দিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী।
শুক্রবার,১১ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রি. দুপুর ২.০০ টায় নাগরপুর উপজেলার চাষাভাদ্রা গ্রামে সিনএনজি চালক সেন্টুসহ নিহত তিন পরিবার ও দোলতপুর উপজেলা নিহত চালক জামালের বাড়িতে গিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে নগদ ৪ লক্ষ টাকা প্রদান করেন কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের নির্বাহী সদস্য মো.সাহাবুদ্দীন চৌধুরী।
৪ পরিবারের মাঝে অর্থ প্রদান কালে উপস্হিতি ছিলেন, টাংগাইল জেলা আমীর মো.আহসান হাবীব মাসুদ,জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মো.শহীদুল ইসলাম,টাংগাইল শহর আমীর অধ্যাপক মিজানুর রহমান চৌধুরী,উপজেলা আমীর মাও.রফিকুল ইসলাম সহ জামায়াতের জেলা, সাথে উপস্হিতি ছিলেন উপজেলা ও ইউনিয়ন নেত্ববৃন্দ, স্হানীয় মেম্বার সহ এলাকার সম্মানিত নাগরিক বৃন্দ।
উল্লেখ্যে গত শুক্রবার,৪ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রি. বিকালে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার মুলকান্দি নামক স্থানে এক দূর্ঘটনায় এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজির চালক দোলতপুরের জামাল সহ সিএনজিতে থাকা সকলেই মারা যায়। এতে হরেকৃষ্ণ বাদ্যকরের পরিবারের সকলেই নিহত হয়।এবং তার পরেই দিন শনিবার সকালে নাগরপুর ফায়ার সার্ভিস এর নিকটে ট্রলি ও সিনএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহন হন একই এলাকার চাষা ভাদ্রার সিএনজি চালক মো.সেন্টু।