মহেশপুরে পেচ প্রকল্পের সংযোগ স্থাপন কর্মশালা অনুষ্ঠিত

55
এস. এম. শফিক, যশোর (৭১৮) প্রতিনিধি:
ঝিনাইদহের মহেশপুরে শিশু নিলয় ফাউন্ডেশন কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন Promoting Agricultural Commercialization and Enterprises (PACE) প্রকল্পের আওতায় ইমিটেশন গোল্ড জুয়েলারি উৎপাদন ও বাজারজাত করণের মাধ্যমে উদ্যোক্তাদের আয় বৃদ্ধি করণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি শীর্ষক ভ্যালু চেইন উন্নয়ন উপ-প্রকল্প এ কর্মশালার আয়োজন করে। আজ ২৩ ডিসেম্বর উপজেলা কৃষি প্রশিক্ষণ হলরুমে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
“গুণগত মানসম্পন্ন ইমিটেশন পণ্যের বিক্রি বৃদ্ধির জন্য উৎপাদনকারী ও পাইকারদের মাঝে সংযোগ স্থাপন কর্মশালা” শিরোনামে অনুষ্ঠিত উক্ত কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন শিশু নিলয় ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক (মাইক্রোফিনান্স) ও প্রকল্পের ফোকাল পার্সন জনাব মোঃ ইমামুল হোসেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসার জনাব মোঃ আলমগীর হোসেন।
সভাপতি তার সূচনা বক্তব্যের মাধ্যমে শিশু নিলয় ফাউন্ডেশনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড যেমন- ঋণ কার্যক্রম, মৎস্য ও কৃষি ইউনিট, শিক্ষা, কৈশোর কর্মসূচি, প্রবীণ কর্মসূচি, Domestic Violence সহ অন্যান্য কর্মসূচি সংক্ষিপ্তসারে তুলে ধরেন। পেচ প্রকল্পের ভ্যালু চেইন ফ্যাসিলিটেটর জনাব এস. এম. শফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় ইমিটেশন জুয়েলারি ব্যবসার সাথে জড়িত বিভিন্ন পর্যায়ের মার্কেট এক্টরস যেমন-উৎপাদনকারী, পাইকার, কারখানা মালিক, শোরুম ব্যবসায়ী, কাঁচামাল বিক্রেতা সহ এই সেক্টরের সাথে জড়িতরা অংশগ্রহণ করে।
দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত ব্যবসায়ীরা এই কর্মশালায় পণ্যের বাজারজাত করণ ও প্রকল্পের চলমান কর্মসূচি সম্পর্কে ধারণা লাভ করে। পরবর্তীতে পণ্যের বিক্রি বৃদ্ধির জন্য উৎপাদনকারী ও পাইকারদের মাঝে উন্মুক্ত আলোচনা হয়। কর্মশালায় আগত ব্যবসায়ীরা এ সেক্টরের ব্যবসার বর্তমান অবস্থা, সমস্যা, সম্ভাবনা, পণ্য পরিবহনে হয়রানি এবং সামগ্রিক বাজার ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিস্তর আলোচনা করেন। পরবর্তীতে বৈচিত্র্যময় ডিজাইনের গহনা তৈরীর ক্ষেত্রে কি ধরনের বাজার তৈরি হতে পারে সেটির বিষয়েও আলোকপাত করেন।
দিনব্যাপী কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিশু নিলয় ফাউন্ডেশনের চৌগাছা এরিয়া ইন-চার্জ (মাইক্রোফিনান্স) জনাব মোঃ খাইরুল বাশার, সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক জনাব ফায়সাল মাহমুদ জোয়ার্দার, সিনিয়র শাখা ব্যবস্থাপক (মাইক্রোফিনান্স) জনাব মোঃ শরিফুল ইসলাম, একাত্তর টিভি রিপোর্টার জনাব মোঃ আজাদ। এছাড়া অন্যান্যদের মাঝে মোঃ জাকির হাসান, ফাহদ্ আহমেদ, মোস্তফা মহসীন, মোঃ আবু হাসান, মোঃ ইব্রাহিম হোসেন ও মোঃ আব্দুর রহিম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।